Breaking News
Home / বিশ্ব মিডিয়া / সরকারের সমালোচনা করতে বাধা নেই: বিবিসিকে শেখ হাসিনা

সরকারের সমালোচনা করতে বাধা নেই: বিবিসিকে শেখ হাসিনা

শেখ হাসিনা: নির্বাচন, গণতন্ত্র, মানবাধিকারসহ সাম্প্রতিক ইস্যু নিয়ে বিবিসির মুখোমুখি

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী বলেছেন বাংলাদেশে সংবাদমাধ্যম এবং মতপ্রকাশের স্বাধীনতা অতীতের আর যে কোন সময়ের চেয়ে অনেক বেশি।

লন্ডনে বিবিসিকে দেওয়া এক একান্ত সাক্ষাৎকারে প্রধানমত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, দেশের এবং জনগণের নিরাপত্তার স্বার্থে কোনো উস্কানির বিরুদ্ধে সরকারকে ব্যবস্থা নিতে হয়, কিন্তু শুধুমাত্র সরকারের সমালোচনা করতে কাউকে বাধা দেয়া হয় না ।

বিবিসির মানসী বড়ুয়ার সাথে দীর্ঘ সাক্ষাৎকারে প্রধানমন্ত্রী হাসিনা বাংলাদেশে ডেঙ্গু পরিস্থিতি মোকাবেলায় সরকার ও সিটি করপোরেশনের ভূমিকা, দেশটির অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি, অনাদায়ী ব্যাংক ঋণ, দেশে গণতন্ত্রের চর্চ্চা, প্রশ্নবিদ্ধ নির্বাচন, এবং হেফাজতে মৃত্যু ও নির্যাতন নিয়ে বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন।

সমসাময়িক এসব বহুল আলোচিত ইস্যু নিয়ে দেখুন বিবিসি বাংলার সাথে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার একান্ত সাক্ষাতকার।

বাংলাদেশে গণতন্ত্রের মান ও এর চর্চা কিভাবে হচ্ছে তা নিয়ে আন্তর্জাতিক মহলে অনেক প্রশ্ন রয়েছে। বিষয়টি সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করা হলে শেখ হাসিনা বলেন যে দেশে এখন ৪৪টি প্রাইভেট টেলিভিশন আছে এবং তারা স্বাধীনভাবে কাজ করছে। “স্বাধীনতা না থাকলে তারা আমার বিরুদ্ধে বা সরকারের বিরুদ্ধে এত অপপ্রচার করছে কীভাবে।”

গত ৩০শে ডিসেম্বরের নির্বাচনে অনেক কেন্দ্রে ১০০ শতাংশ ভোট পড়েছে এবং এ নিয়ে যে সমালোচনা রয়েছে, সে বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, “সেটা এখন কোন কেন্দ্রে গোনার দিক থেকে হয়তো পেয়েছে। কোন কেন্দ্রে হয়তো হতে পারে।”

তিনি বলেন, “কিন্তু আমাদের ট্রাইব্যুনাল আছে সেখানে মামলা করতে পারে, কোর্টে মামলা করতে পারে। নির্বাচন কমিশনও মামলা করতে পারেন। তারা তদন্ত করে দেখছেন।”

প্রধানমন্ত্রী বলেন, “মানুষ যদি সত্যিই ভোট দিতে না পারতো, তাহলে তাদের ডাকা সাড়া দিয়ে মানুষ আন্দোলনে নামত এবং আমরা ক্ষমতায় থাকতে পারতাম না।”

শেখ হাসিনার সাক্ষাৎকার
বাংলাদেশে সমসাময়িক সব ইস্যু নিয়ে বিবিসি বাংলার সাথে প্রধানমন্ত্রীর একান্ত সাক্ষাৎকার।

শেখ হাসিনা উল্লেখ করেন যে বাংলাদেশের স্বাধীনতার পর মাত্র সাড়ে তিন বছরের মধ্যে দেশের প্রতিষ্ঠাতা রাষ্ট্রপতিকে হত্যার ঘটনার পর থেকে অপরাধকে প্রশ্রয় দেয়ার সংস্কৃতি শুরু হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন যে অসাংবিধানিক সরকারের সময় যারা বেশি সুযোগ ভোগ করেছে বা ক্ষমতাটা যারা উপভোগ করেছে, তারা কখনোই চায়নি বাংলাদেশের গণতান্ত্রিক ধারা অব্যাহত থাকুক।

তিনি বলেন, “একটা শ্রেণী হেফাজতে মৃত্যুর বিষয়ে অপপ্রচার চালাচ্ছে। তাদের মধ্যে কিছু আছে যারা অসাংবিধানিক সরকার, জরুরি অবস্থা অথবা মার্শাল ল’ বা মিলিটারি রুলার আসলে তাদের খুব দাম বাড়ে। কাজেই তারা সারাক্ষণ খুঁটিনাটি বিষয় নিয়ে আমাদের পেছনে লেগেই আছে।”

সম্প্রতি পুলিশি হেফাজতে আটক ব্যক্তিদের নির্যাতনের বিষয়ে জাতিসংঘের একটি কমিটির মুখোমুখি হয় বাংলাদেশ।

২০ বছর আগে বাংলাদেশ এই সম্পর্কিত একটি কনভেনশনে সই করে। কিন্তু সে বিষয়ে রাষ্ট্রীয় পর্যায় থেকে একটি প্রতিবেদন দিয়েছে মাত্র ক’দিন আগে। আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা হিউম্যান রাইটস ওয়াচ এক বিবৃতিতে বাংলাদেশকে জাতিসংঘের সুপারিশ মেনে চলার আহবান জানিয়েছে।

বিবিসি বাংলা

 

About Shariful Islam Khan

Check Also

ভারতীয় গণমাধ্যমের দাবি শেখ হাসিনার ভারত সফরের মূল ইস্যু হতে পারে এনআরসি

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ আগামী ৩ থেকে ৬ অক্টোবর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভারত সফর করবেন। তার এই …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *